মঙ্গলবার | ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

অসহায় নারীকে ইনার হুইলের পিঠার বক্স উপহার

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১, ২০২২




স্টাফ রিপোর্টার ॥ ​হবিগঞ্জ শহরের মোহনপুর এলাকার গৃহবধু আনোয়ারা খাতুন। ২ ছেলে ও ১ মেয়ের মাঝে মেয়েটি প্রতিবন্ধি। স্বামী বাচ্চু মিয়ারও নেই তেমন কোন আয় উপার্জন। অতিকষ্টে দিনাতিপাত করতে হয়। নিজে কিছু করবেন তেমন কোন পূজিও নেই। পরিচিত এক নারী আইনজীবী ১০ হাজার টাকা পূজি দিলে সেই টাকা নিয়ে রাস্তার পাশে চুলা বসিয়ে তৈরি করেন শীতের পিঠা। স্বামী ও সন্তানও তাকে সহযোগিতা করে। ভাপা ও চিতই পিঠা দিয়ে আয় উপার্জনও ভালই হচ্ছে। কিন্তু রাস্তার ধুলা বালি থেকে পিঠাগুলো সুরক্ষার কোন উপায় না থাকায় বিক্রির পরিমাণ তেমন বাড়ছিলনা।

বিষয়টি নজরে আসে ইনার হুইল ক্লাব অব হবিগঞ্জের প্রেসিডেন্ট রায়হানা বেগমের। তিনি তার ক্লাবে বিষয়টি উপস্থাপন করলে ক্লাবের নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্প থেকে ওই নারীর পাশে থাকার সিদ্ধান্ত নেন ক্লাবের সদস্যরা। পরে গ্লাস ও থাই এ্যালমুনিয়ার দিয়ে তৈরি করেন একটি নিরাপদ বাক্স। শুক্রবার বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে আনোয়ারা খাতুনের হাতে তুলে দেয়া হয় বাক্সটি। বাক্সটি পেয়ে আনন্দে কেদে ফেলে ওই মহিলা। প্রতিক্রিয়া জানিয়ে এই মহিলা বলেন, ‘ এখন আর শুধু শীতকাল নয়। সারা বছরই ডাইলের পিঠা, ডাইলের বড়া,সিঙ্গারা আর সমুচা বিক্রি করতে পারব।

শুক্রবার বিকেলে হবিগঞ্জ শহরের জে কে এন্ড এইচ কে হাই স্কুলে এক অনুষ্ঠানে আনোয়ারার হাতে বাক্সটি তুলে দেয়া হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল। ক্লাব প্রেসিডেন্ট রায়হানা বেগমের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক তাছকিরা আক্তার জুবলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ক্লাবের চার্টার্ড প্রেসিডেন্ট তাহমিনা বেগম গিনি, ট্রেজারার এডভোকেট শায়লা পারভীন ও ক্লাব করেস্পন্ডেন্ট রওশন আরা লুনা।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ড. জহিরুল হক শাকিল বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সবার আগে প্রয়োজন নারীদেরকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাভলম্ভি করা। ছোট একটি উদ্যোগ একটি নারীর পরিবারকে বদলে দিতে পারে। ইনারহুইল ক্লাবের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায় অনেক অসহায় নারী নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারে। এভাবে সকলে মিলে কাজ করলেই নারীর ক্ষমতায়ন সম্ভব হবে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর