মঙ্গলবার | ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

আজমিরীগঞ্জে ভিমরুলের কামড়ে স্বামী -স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

প্রকাশিত : আগস্ট ৭, ২০২১




আজমিরীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে বিষাক্ত ভীমরুলের কামড়ে ২ ঘন্টার ব্যবধানে একই পরিবারের নি:সন্তান স্বামী-স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (৬ আগস্ট) আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাত সাড়ে ১১ টায় স্বামী আবুল মিয়া (৮০) এবং রাত ২ টায় আবুল মিয়ার স্ত্রী অযিতন নেছা (৫৫) মৃত্যুবরণ করেন। মৃত আবুল মিয়া আজমিরীগঞ্জ পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের আজিমনগর জুম্মাহাটীর বাসিন্দা মৃত মুন্সিউল্যার ছেলে।

জানা যায়, নিজেদের জায়গা জমি না থাকায় বিগত ২০ বছরের ও বেশী সময় ধরে প্রতিবেশী মাসুক মিয়ার জায়গাতে একটি ঘর তুলে বসবাস করছেন নিঃসন্তান দম্পতি আবুল মিয়া ও উনার স্ত্রী অযিতন নেছা। স্বামী আবুল মিয়া দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ হওয়ার কারণে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করতেন স্ত্রী অযিতন নেছা। সেই সাথে সচ্ছল পাড়া প্রতিবেশীরাও সাহায্য সহযোগিতা করতেন নিঃসন্তান এই দম্পতিকে।

গত শুক্রবার (৬ আগস্ট) বিকাল ৩টায় দুপুরের খাবার খেয়ে নিজের বসত ঘরে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন আবুল মিয়া ও উনার স্ত্রী অযিতন নেছা। এ সময় বসত ঘরের সামনে থাকা আম গাছ থেকে ভিমরুলের বাসাটি ভেঙ্গে আবুল মিয়ার দরজার সামনে পড়লে বিষাক্ত ভিমরুল গুলো এক সাথে আবুল মিয়ার ঘরে প্রবেশ করে আবুল মিয়া ও উনার স্ত্রীকে কামড়ানো শুরু করে। এ সময় আবুল মিয়া ও উনার স্ত্রীর শোর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

শুক্রবার রাত সাড়ে এগারোটায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বামী আবুল মিয়া ও রাত ২টায় স্ত্রী অযিতন নেছা মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর খবরটি ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। শনিবার (৭ আগস্ট) সকাল থেকে উৎসুক জনতা নিঃসন্তান দম্পতির মৃত সংবাদ শুনে এক নজর দেখার জন্য মৃত আবুল মিয়ার বাড়িতে ভিড় জমান।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসার পর আমরা দেখতে পাই একাধিক ভিমরুলের কামড়ের ফলে অতিরিক্ত বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে উনাদের হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করার জন্য ছাড়পত্র দেই। কিন্তু উনারা যেতে রাজি না হওয়ায় আমরা উনাদের সাক্ষর রেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে চিকিৎসা প্রদান করি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১১টায় আবুল মিয়া মৃত্যুবরণ করেন। রাত ১২ টার দিকে আবুল মিয়ার স্ত্রী অযিতন নেছার অবস্থা খারাপের দিকে যায়। তখনও আমরা উনাকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করার কথা বলি কিন্তু উনাদের কোন আত্মীয় স্বজন না থাকায় কেউ তেমন সাড়া দেননি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ২ টায় অযিতন নেছাও মৃত্যুবরণ করেন। বিষয়টি আমি আজমিরীগঞ্জ থানায় অবগত করেছি।

এ বিষয়ে আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম জানান- খবর পেয়ে আমরা ঘঠনাস্থলে যাই এবং সরজমিনে তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।

এই বিভাগের আরো নিউজ

সিলেটে মজুমদারী এলাকায় দুই বোনের রহস্যজনক মৃত্যু
তৃতীয়বারের মতো জয়ী হলেন জাস্টিন ট্রুডো
আগামী ৩ দিন বন্ধ থাকবে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান চলাচল
ইভা রহমানের বিয়ে নিয়ে তোলপাড়
পূজায় ভারতে যাচ্ছে দুই হাজার টন ইলিশ
আজকের সর্বশেষ সব খবর