শুক্রবার | ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

আজমিরীগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচিয়ে অর্ধলক্ষ টাকা হাতিয়ে নিলো প্রতারক চক্র

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২৩




আজমিরীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে এসিল্যান্ড পরিচয় দিয়ে জাহাঙ্গীর আলম নামে এক আইসক্রীম ফ্যাক্টরি ব্যাবসায়ীর কাছ থেকে নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে একটি প্রতারক চক্র। প্রতারক চক্রটিকে সহযোগীতা করার অপরাধে কফিল উদ্দিন (৩৫) নামে এক স্থানীয় এক ব্যাক্তিকে ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ এর ৫৪ ধারায় নগদ পাঁচ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পৌরসভার ভুঁইয়া মার্কেটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শফিকুল ইসলাম। অর্থদন্ড প্রাপ্ত কফিল উদ্দিন উপজেলার সদর ইউনিয়নের বিরাট উজানপাড়া গ্রামের সাহাবউদ্দিন মিয়ার পুত্র।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সুত্রে জানাযায়, বিগত কিছুদিন যাবত একটি প্রতারক চক্র উপজেলার বিভিন্ন বাজারে বেকারী, আইসক্রীম ফ্যাক্টরি ও রেস্টুরেন্ট ব্যাবসায়ীদের টার্গেট করে মোবাইল কলের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করার ভয় দেখিয়ে প্রতারণা করার চেষ্টা করে আসছে৷ সোমবার সকালে অর্থদন্ডিত কফিল উদ্দিনের ব্যাবহৃত মোবাইল ফোনে প্রতারক চক্রের এক সদস্য ০১৫৩০১৪২২৭১ নাম্বার থেকে কল করে উপজেলার এসিল্যান্ড পরিচয় দিয়ে বাজারের কযেকটি ব্যাবসায়ীদের নাম্বার চান।

এসময় কফিল উদ্দিন বাজারের লঞ্চঘাট এলাকার ব্যাবসায়ী জাহাঙ্গীর আলমের আইসক্রীম ফ্যাক্টরিতে গিয়ে তার ব্যাবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে প্রতারক চক্রটির সদস্যদের সাথে জাহাঙ্গীর আলামের ভাতিজা আপন মিয়াকে আলাপ করিয়ে দেন। প্রতারক নিজেকে উপজেলার এসিল্যান্ড পরিচয় দেয় এবং মোবাইল কোর্টে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানার ভয় দেখায়। মোবাইল কোর্টের জরিমানা থেকে বাঁচতে প্রতারকের চাহিদা মোতাবেক আপন মিয়া ০১৯২৯৬৮৬৩০৮ নাম্বারে ৩২ হাজার ০১৫৩০১৪২২৭১ নাম্বারে ১৮ হাজার টাকা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রেরণ করেন।

বিষয়টি জানার পর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শফিকুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে কফিল উদ্দিনকে প্রতারক চক্রটিকে সহযোগীতার অপরাধে উল্লেখিত অর্থদন্ড প্রদান করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে আজমিরীগঞ্জ থানার এএসআই মিটুন দাসের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সার্বিক সহযোগীতা প্রদান করেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শফিকুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন যাবত একটি প্রতারক চক্র প্রশাসনের নাম ব্যাবহার করে সাধারণ ব্যাবসায়ীদের টার্গেট করে প্রতারণা করার চেষ্টা করে আসছে। আমরা বিষয়টি সম্পর্কে অবগত রয়েছি এবং সবাইকে সচেতন থাকার জন্য বলা হয়েছে৷ আজ বিষয়টি জানার পর তাৎক্ষণিক আমরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে প্রতারকদের সহযোগিতা করার অপরাধে কফিলউদ্দিন নামে একজনকে অর্থদন্ড প্রদান করেছি। এবং যারা প্রতারিত হয়েছেন তাদের থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর