সোমবার | ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

আদি বুড়িগঙ্গা পূর্ণরূপে না আসা পর্যন্ত অভিযান: তাপস

প্রকাশিত : নভেম্বর ২, ২০২২




নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ আদি বুড়িগঙ্গা পূর্ণরূপে ফিরে না আসা পর্যন্ত খনন, বর্জ্য অপসারণ ও উচ্ছেদ অভিযান কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (২ নভেম্বর) দুপুরে বুড়িগঙ্গা আদি চ্যানেলে চলমান পরিষ্কার, খনন ও উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা জানান।

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, আমরা অক্টোবর থেকে আদি বুড়িগঙ্গা খনন, সীমানা নির্ধারণ এবং দখলমুক্ত করার কার্যক্রম শুরু করেছি। আজকে সেই কার্যক্রম পরিদর্শনে আমি আবারো এসেছি। আপনারা লক্ষ্য করেছেন, কালুনগর স্লুইস গেটের যেই জায়গাটিতে আমরা দাঁড়িয়ে আছি, অক্টোবর মাসেও এখানে পুরো বন্ধ অবস্থায় ছিলো। এখানে যে নদীর খাল বা অববাহিকা তা দৃশ্যমান ছিলো না।

তিনি বলেন, আজকে সেই নদীর পরিবেশ দৃশ্যমান হয়েছে। আমরা অনেক দখলমুক্ত করেছি। এখানে বিভিন্ন কারখানা, বড় বড় ভবন, দশতলা ভবন, সেগুলো ভাঙার প্রক্রিয়া এখনো চলমান রয়েছে। নদীর পাশ দিয়ে দু’টি ঢাল বা দু’টি তীর এখন দৃশ্যমান হয়েছে। এ কার্যক্রম চলমান থাকবে। যতোক্ষণ না পর্যন্ত পূর্ণরূপে আমরা আদি বুড়িগঙ্গা ফিরিয়ে আনতে পারবো ততোক্ষণ পর্যন্ত আমাদের কাজ চলমান থাকবে।

আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেল উদ্ধার পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা জানিয়ে মেয়র বলেন, আদি বুড়িগঙ্গার পুরো ৭ কিলোমিটারই আমরা দখলমুক্ত করবো। নতুন করে খনন করব এবং দু’পাশ দিয়েই হাঁটার পথ, সাইকেল চালানোর পথ এবং নান্দনিক পরিবেশ সৃষ্টি করবো। এটা অত্যন্ত দুরূহ এবং বিশাল কর্মযজ্ঞ। আমরা শুরু করেছি মাত্র, একটু সময় নেবে। কিন্তু আমরা আশাবাদী, ঢাকাবাসী একটি নান্দনিক পরিবেশ পাবে, নদীকে ফিরে পাবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা কেবল কাজ শুরু করলাম। কাজটি আমরা বর্ষা মৌসুমের আগে ভালো একটি অবস্থানে নিয়ে যেতে চাই। কারণ বর্ষার মধ্যে কাজ করা আরও দুরূহ। সুতরাং আমি মনে করি যে, আগামী মার্চের মধ্যেই আমরা আরো অনেক কাজ দৃশ্যমান করতে পারবো। নদীর অববাহিকা দেখতে পাবো।

এর আগে মেয়র তাপস ডেমরা এলাকায় দক্ষিণ সিটির ৬৭ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্রের (এসটিএস) উদ্বোধন, ফ্রেঞ্চ রোডের চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম ও মাজেদ সরকার সড়কের বর্তমান অবস্থা পরিদর্শন করেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর