মঙ্গলবার | ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

ইউএসএআইডি ও এবিলিটি প্রজেক্টের প্রতিনিধিদের হবিগঞ্জ পৌর স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন

প্রকাশিত : মে ২, ২০২৩




স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ পৌরবাসীর জন্য স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে আরো দুটি প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হবে। প্রায় ১ কোটি ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে ওই দুটি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক প্রস্তাবনার কাজ যৌথভাবে শুরু করেছে হবিগঞ্জ পৌরসভা ও ইউএসএআইডি।

মঙ্গলবার (২রা মে) শহরের পিটিআইয়ে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র পরিদর্শন ও পৌরভবনে স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

সকাল সাড়ে ১০ টায় ইউএসএআইডির ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এর ডিভিশন ভাইস প্রেসিডেন্ট এলিসন পেরি বিয়ার, লোকাল হেলথ সিষ্টেম সাসটেইন এবিলিটি প্রজেক্ট এর চিপ অব পাটি রাজিব আহুজা ও সিলেট অঞ্চলের রিজিওনাল আরবান হেলথ কোঅর্ডিনেটর আব্দুল মতিনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র পরিদর্শন করে।

অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা পৌরপ্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রের কার্যক্রম ঘুরে ঘুরে দেখেন। তারা কর্মরত চিকিৎসক, মেডিক্যাল এসিসটেন্ট, স্বাস্থ্যকর্মী ও রোগীদের সাথে কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট অঞ্চলের রিজিওনাল আরবান হেলথ কো-অর্ডিনেটর মোঃ আব্দুল মতিন, হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাবেদ ইকবাল চৌধুরী ও অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

বেলা সোয়া এগারোটায় প্রতিনিধি দল হবিগঞ্জ পৌরসভা কার্যালয়ে স্বাস্থ্য, পানি ও স্যানিটেশন বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভায় অংশগ্রহন করেন। সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেয়র আতাউর রহমান সেলিম বলেন, ‘শুধু অবকাঠামো উন্নয়নই বড় কথা নয়, বরং সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ন বিষয়।’ তিনি বলেন ‘এ বিষয় উপলব্ধি করে স্বাস্থ্য প্রশাসন ও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় আমরা পরিত্যক্ত একটি ভবনকে সংস্কার করে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র চালু করেছি।’ মেয়র বলেন,‘পৌরবাসীকে পরিপূর্ন চিকিৎসা না দিতে পারলেও অন্ততঃ প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে আমরা আমাদের আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাবো।’

সফররত অতিথি এলিসন পেরি বেয়ার ও রাজিব আহুজার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে মেয়র বলেন,‘সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে আপনাদের প্রচেষ্টার জন্য হবিগঞ্জ পৌরসভার পক্ষ হতে আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’ তিনি বলেন বতর্মান সরকার, ইউএসএআইডিসহ সকলের সহযোগিতায় আমরা হবিগঞ্জ পৌরসভার স্বাস্থ্য সেবা এগিয়ে নিতে আরো দুটি প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা চালু করতে সমর্থ হবো।

এবিটি এসোসিয়েটসের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এলিসন পেরি বিয়ার হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রের ভুয়শী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যাতে সবাই সেবা নিতে আসে সে ব্যাপারে জনগনকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

ইউএসএআইডি বাংলাদেশের চীফ অব পার্টি রাজিব আহুজা বলেন, হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা একটি অনন্য দৃষ্টান্ত হতে পারে। তিনি বলেন, এটি একটি ব্যতিক্রমী স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র যা দেশের অন্যন্য পৌরসভা অনুসরণ করতে পারে। এ ব্যাপারে তিনি এই কেন্দ্রের আরো বেশী প্রচারণা করার ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পরিবার সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ পরিচালক মীর সাজিদুর রহমান, হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মুখলেছুর রহমান উজ্জল ও স্থায়ী কমিটির সভাপতি পৌর কাউন্সিলর সফিকুর রহমান সিতু। প্রজেক্টরে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রেজেন্টেশন পরিচালনা করেন সিলেট অঞ্চলের রিজিওনাল আরবান হেলথ কোঅর্ডিনেটর মোঃ আব্দুল মতিন ও হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাবেদ ইকবাল চৌধুরী। সভায় হবিগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলরদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ জাহির উদ্দিন, গৌতম কুমার রায়, টিপু আহমেদ, শাহ সালাউদ্দিন আহাম্মদ টিটু, প্রিয়াংকা সরকার, খালেদা জুয়েল ও সুমা জামান।

 

আজকের সর্বশেষ সব খবর