শনিবার | ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

একরাম-নিজাম আমাকে হত্যার জন্য মিটিং করেছে: কাদের মির্জা

প্রকাশিত : মার্চ ১৩, ২০২১




সারাদেশ ডেস্ক : নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, এমপি নিজাম ও একরামের অস্ত্র আমার বিরুদ্ধে ব্যবহার হচ্ছে। গতকাল রাতে নিজাম হাজারী আর একরাম চৌধুরীর নির্দেশে আমাকে হত্যা করার জন্য বৈঠক করে এবং আমার এখানে আবারো হামলা করার তারা একটা প্রক্রিয়া করতেছে।

শনিবার (১৩ মার্চ) সকাল ১১টায় বসুরহাট পৌরসভায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে গণমাধ্যম কর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা তার অনুসারী ৮ নেতাকে গ্রেপ্তারের অভিযোগ তুলে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

কাদের মির্জা বলেন, যতোক্ষণ আমার এক ফোটা রক্ত আছে, আমি এখান থেকে সরবো না। আমি এটাতে আছি। আমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলবো। আমি সাহস করে সত্য কথা বলবো। আমি অন্যায়-অবিচার জুলুমের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবো।

তিনি বলেন, গতকাল থেকে আবার নতুন করে আমার অনুসারী নেতাকর্মীদের মামলা-হামলা গ্রেপ্তার এগুলো সব হচ্ছে। সারারাত প্রত্যেকটা আমার প্রত্যেক নেতাকর্মীর বাড়িতে পুলিশ এবং আরো সরকারি প্রশাসনের বিভিন্ন লোকজন হামলা করছে। অনেক পরিবারকেও লাঞ্ছিত করতে।

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার আবেদন, আপনি দলীয়ভাবে এখানে জেলা কমিটিকে তদন্তভার দিয়েছেন। এদের তো কমিটিটাও অনুমোদন হয়নি। এরা একপেশে। তারা তো একটা সন্ত্রাসীদেরকে মদদ দিচ্ছে। তাদের থেকে সঠিক তথ্য দল পাবে। সেজন্য আমি প্রস্তাব করছি, আমাদের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং আমাদের এ অঞ্চলের নেতা সুজিত রায় নন্দী এ দু’জনসহ যাদেরকে দেন ওনারা তদন্ত করে যদি আমি দোষী সাব্যস্ত হই। আমার দলের নেতাকর্মী দোষী সাব্যস্ত হয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

তিনি বলেন, এছাড়া ঘটে যাওয়া সকল ঘটনার জন্য ঢাকা থেকে বিচার বিভাগীয় তদন্তের ব্যবস্থা করতে হবে। যদি নোয়াখালী থেকে করে তাহলে প্রভাবিত হবে। আর না হলে এনএসআই, ডিজিএফআই আছে তাদেরকে দিয়ে তদন্ত করে যদি আমি এবং আমার অনুসারী যারা আছে অপরাধের সাথে জড়িত থাকে তাহলে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।

কাদের মির্জা আরো বলেন, আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভূগতেছি না, আমি আল্লার ওপর নির্ভরশীল তবে আমার অনুসারী নেতাকর্মীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর