বৃহস্পতিবার | ২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

চুনারুঘাটে ৪৪ মনোনয়নপ্রত্যাশীর মাঝে একজন নারী

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১, ২০২১




জামাল হোসেন লিটন, চুনারুঘাট থেকে॥ পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ৪৪ জন। উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকা বেশ দীর্ঘ। এর ভিড়ে সবার দৃষ্টি কেড়েছে একজন নারী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। তার নাম শামসুন্নাহার চৌধুরী। তিনি হবিগঞ্জ মহিলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। চুনারুঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন শামসুন্নাহার চৌধুরী।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আকবরের হোসেন জিতু জানান, চুনারুঘাটের ১০টি ইউনিয়নে পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ৪৪ জন দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে একমাত্র নারী মনোনয়ন ফরম কেনেন। তিনি বর্তমান চেয়ারম্যান। এবারও তিনি দেওরগাছ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ার ঘোষণা দিয়ে প্রচারণায় সরব।

গতকাল দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ফরম জমা দেওয়ার পর শামসুন্নাহার চৌধুরী মুঠোফোনে জানান, দেশের জনসংখ্যার অর্ধেক নারী, ভোটারদেরও অর্ধেক নারী। অথচ পারিবারিক, সামাজিক, রাজনৈতিক এমনকি জনপ্রতিনিধি সবখানে নারী ও পুরুষের মধ্যে অনেক বৈষম্য বিদ্যমান।

তিনি বলেন, দেশ ও জাতিকে এগিয়ে নিতে নারীদের সঠিক ক্ষমতায়ন প্রয়োজন। এ জন্য সব স্থানে নারীদের সঙ্গে ও পুরুষের সমপরিমাণ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। সামাজিক আন্দোলনে আমার স্লোগানও এটা। আর এ জন্যই আমি চেয়ারম্যান পদে লড়ার ঘোষণা দিয়ে এবারও দলের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। আমি সর্বপ্রথম ১৯৮৮-১৯৯২ সাল পর্যন্ত মিরাশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করি। পরবর্তী সময়ে দেওরগাছ ইউপির টানা দুইবারের চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, নারী হিসেবে আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী তাকে নৌকা প্রতীক দিলে এবারও তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর