রবিবার | ২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

জামালগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জেরে কৃষি জমি নষ্টের অভিযোগ

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২১, ২০২২




সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জামালগঞ্জে এক কৃষকের ধানি জমি গর্ত করে নষ্ট করে দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে সেরমস্তপুর গ্রামের প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় কৃষকের স্ত্রী আলেয়া বেগম বাদী হয়ে মঞ্জুর আলী, শাহ আলম, মঈনুদ্দিন, জসিম উদ্দিন, মুসলিম উদ্দিনসহ সেরমস্তপুর গ্রামের ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ৭০ জনকে আসামি করে জামালগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সাচনা বাজার এলাকার কৃষক আব্দুল মতলিব ক্রয়সুত্রে সেরমস্তপুর মৌজায় ৭ বিঘা জমি ক্রয় করে ধান চাষ করে আসছেন দীর্ঘদিন যাবত। কয়েক বছর ধরে সেরমস্তপুর গ্রামের প্রভাবশালী একটি চক্র জমিটি অন্যায়ভাবে দখল করার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৭ ডিসেম্বর সকালে সেরমস্তপুর গ্রামের কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তির নেতৃত্বে গ্রামের কিছু সংখ্যক মানুষ কৃষি জমিতে গাছের চারা লাগানোর জন্য অবৈধভাবে শতশত গভীর গর্ত করেন। এতে জমিটি ধান চাষের অনুপোযোগী হয়ে পড়ে।

কৃষক মতলিব মিয়া বলেন,  জোরপূর্বক তার ধানি জমিতে গর্ত করে জমি নষ্ট করা হয়েছে। এতে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে তার। মতলিব মিয়ার স্ত্রী আলেয়া বেগম বলেন, সেরমস্তপুর গ্রামের মঞ্জুর আলী, শাহ আলম, মঈনুদ্দিন,জসিম উদ্দিন,মুসলিম উদ্দিনের নেতৃত্বে ৬০/৭০ জন মানুষ তাদের হালচাষ করা জমিতে শতশত গর্তকরে জমি নষ্ট করে দিয়েছে। স্থানীয় কৃষক ময়না মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন যাবত জমিতে ফসল ফলিয়ে আসছেন কৃষক মতলিব মিয়া। সম্প্রতি জমি অন্যায় ভাবে দখল করতে কিছু প্রভাবশালী মরিয়া হয়ে ওঠে। মতলিব মিয়া যাতে জমির দখল ছেড়ে চলে যায় এজন্য শতশত গর্ত করেছে প্রভাবশালীরা।

সাচনা বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুক মিয়া বলেন, জমি চিহ্নিত না করায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ দেব বলেন, কৃষি জমি নষ্ট করার কারো কোন অধিকার নেই, যারা করেছেন তাদের বিরোদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর