বৃহস্পতিবার | ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

‘দেশবিরোধী চক্রের’ ২২ জনের তালিকা করলো সরকার

প্রকাশিত : অক্টোবর ২৭, ২০২২




জার্নাল ডেস্ক ॥ ‘দেশবিরোধী চক্রের’ ২২ জনের তালিকা করেছে সরকার। বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৩১তম বৈঠকের কার্যবিবরণী থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, মো. হাবিবে মিল্লাত ও নাহিম রাজ্জাক অংশ নেন।

বৈঠকে কমিটির সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, সরকার তথা দেশবিরোধীদের ক্রমাগত অপপ্রচারের কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত কতিপয় দেশের প্রতিনিধিরা বাংলাদেশ সম্পর্কে বিরূপ মনোভাব প্রকাশ করতে শুরু করেছে। এছাড়া সুইডেনের ‘নেত্র নিউজ’ একের পর এক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন কেন্দ্র করে বাংলাদেশবিরোধী একটি চক্র বিদেশে বসে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকায় বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। এ ধরনের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সরকারের বক্তব্যগুলো বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার পাশাপাশি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

মন্ত্রী ও কমিটির সদস্য এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ইউরোপের বেশ কিছু দেশে সরকার তথা দেশের বিরুদ্ধে একটি চক্র ব্যাপক আকারে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এগুলো প্রতিরোধের ক্ষেত্রে তিনি কমিটির পরামর্শ কামনা করেন।

মো. হাবিবে মিল্লাত বলেন, সরকারবিরোধী তথা দেশবিরোধী চক্রটি দেশের বাইরে বসে বিভিন্ন ধরনের তথ্য দিয়ে দেশের মধ্যে একটি অস্থিরতা সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে। স্বারাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেশবিরোধী চক্রের ২২ জনের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি দেশবিরোধী প্রচারণায় যে সব অসত্য তথ্য রয়েছে তা তুলে ধরে সঠিক তথ্যসম্বলিত প্রতিবেদন প্রচারের ওপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন। এ ব্যাপারে দল থেকেও একটি দিকনির্দেশনা থাকা দরকার।

সদস্য নাহিম রাজ্জাক সরকার তথা দেশবিরোধী চক্রের ষড়যন্ত্রগুলো সঠিকভাবে মোকাবিলা করতে হলে বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পাশাপাশি বেশি করে অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, সুইডেন ব্রাসেলসসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত কয়েকটি দেশে বাংলাদেশ বিরোধী প্রচারণা বেশি হচ্ছে বিধায় তাদের সঙ্গে নিবিড়ভাবে আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাওয়া এবং কমিটির পক্ষ থেকে দেশগুলো সফর করার জন্য তিনি সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

নাহিম রাজ্জাক বলেন, এসব দেশসমূহ আগামী ৬ মাসের মধ্যে ভিজিট করতে হবে, না হলে পরে কমিটির সদস্যরা সময় দিতে পারবেন না। তিনি আরও বলেন, দেশবিরোধী অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রচারণার ক্ষেত্রে ‘ঢাকা ডায়লগ’ একটি বড় প্ল্যাটফর্ম হতে পারে। তাই এ অনুষ্ঠান বাংলাদেশে আয়োজনের ক্ষেত্রে তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে পুনরায় অনুরোধ জানান।

সভাপতি বলেন, দেশবিরোধী চক্রের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশনগুলোর কর্মতৎপরতা বৃদ্ধির পাশাপাশি এ ধরনের অপকর্মের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে হবে। প্রয়োজনে সংসদীয় কমিটি এ ব্যাপারে সহযোগিতা প্রদান করবে বলে তিনি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আশ্বস্ত করেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর