সোমবার | ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

নবীগঞ্জে মাথায় টিউমার নিয়ে দিনমজুরির ঘরে এল ইসমাঈল

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২




মোঃ আলাল মিয়া, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ মাথায় বড় আকৃতির টিউমার নিয়ে সদ্য জন্ম নেয়া সন্তানকে নিয়ে বিপাকে পরেছেন দিনমজুর বাবা ফয়সল মিয়া। সন্তাননের চিকিৎসা ব্যায়বহুল হওয়ায় দরিদ্র এই পিতার চারপাশে এখন শুধুই অন্ধকার। সন্তানের জীবন বাঁচাতে তিনি সমাজের ভিত্তবানদের সহযোগিতা চাচ্ছেন। ফয়সল মিয়া নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের করিমপুর গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি জানান, গত ২ সেপ্টেম্বর তার স্ত্রী বাড়িতেই একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু জন্মের পর দেখা যায় শিশুটির মাথায় বড় একটি টিউমার রয়েছে। পরদিন তাকে সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পাঁচদিন চিকিৎসা শেষে তাদেরকে ছুটি দেয়ে হয়।

এ সময় চিকিৎসক জানান, শিশুটিকে ঢাকায় নিয়ে অপারেশন করে টিউমার কেটে ফেলতে হবে। তবে চিকিৎসাটি যেমন ঝুঁকিপূর্ণ তেমনি ব্যায়বহুল। শনিবার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, শিশুটি ঘরের বিচানায় শুয়ে আছে। পাশেই বসা তার বাবা ফয়সল মিয়া আর মা ব্যস্ত সংসারের কাজে। ফয়সল মিয়ার সম্পত্তি বলতে একটি ঘর ছাড়া কিছুই নেই। তাই সন্তানের চিকিৎসা নিয়ে দুশ্চিন্তায় কাটছে রাত-দিন ।

শিশুটির মা মনোয়ারা বেগম বলেন, ‘আমার ছেলে নাম রেখেছি ইসমাঈল হোসেন। ডাক্তার বলছেন ছেলের অপারেশনের জন্য অনেক টাকা লাগবে। তবে কত টাকা লাগবে সেটি তিনি বলেননি। শুধু বলেছে এই চিকিৎসা অনেক ব্যায়বহুল। আমরা খুবই গরিব। ছেলের চিকিৎসার জন্য এক টাকাও আমাদের কাছে নাই। যদি সমাজের ভিত্তবানরা আমাদেরকে কিছু সাহায্য-সহযোগিতা করেন- তাহলে হয়তো আমার ছেলেটিকে বাঁচাতে পারব।

নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) চম্পক কিশোর সাহা সুমন বলেন, ‘এই অপারেশন অনেক ঝুঁকিপূর্ণ। যদি সরকারিভাবে অপারেশন করানো যায়, তাহলে আনুমানিক ১ লাখ টাকার মতো ব্যায় হবে। আর যদি বেসরকারিভাবে করা হলে আড়াই থেকে ৩ লাখ টাকা লাগবে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর