বৃহস্পতিবার | ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

পুলিশের ওপর হামলা মামলায় মির্জা ফখরুল ও আব্বাস গ্রেপ্তার

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ৯, ২০২২




জার্নাল ডেস্ক ॥ পুলিশের ওপর হামলার মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশিদ এ তথ্য জানান।

এ বিষয়ে ডিবি প্রধান হারুন অর রশিদ বলেছেন, আমরা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে এসেছিলাম। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৮ তারিখের ঘটনায় তাদের উস্কানি ও পরিকল্পনার মামলায় গ্রেপ্তার করেছি। একটু পর তাদের কোর্টে চালান করা হবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) রাত ৩টার দিকে মির্জা ফখরুল ও আব্বাসকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাত ৩টার দিকে সাদা পোশাকের পুলিশ দুজনকে বাসা থেকে নিয়ে যায়। আফরোজা আব্বাসের অভিযোগ, সমাবেশের ভেন্যু পরিদর্শন শেষে বাসায় জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মির্জা আব্বাস। পরে নেতারা বাসা থেকে বের হয়ে গেলে সাদা পোশাকের পুলিশ একটি গাড়িতে করে তাকে নিয়ে যায়।

অন্যদিকে মির্জা ফখরুল ইসলামের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম দাবি করেন, রাত ১০টা থেকে তাদের বাসার আশপাশে অবস্থান নেয় গোয়েন্দা পুলিশ। পরে রাত সাড়ে ৩টার দিকে বিএনপির মহাসচিবকে বাসা থেকে নিয়ে যায়। সম্প্রতি পল্টন এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনায় মামলার পরিপ্রেক্ষিতে মির্জা ফখরুল ইসলামকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানান তার স্ত্রী।

এছাড়া মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস বলেন, আমি ঘুমিয়ে ছিলাম। আমাকে ডেকে বললো তাকে (মির্জা আব্বাস) নিয়ে যাওয়া হবে এখন। আমি তো বিশ্বাসই করিনি।

তিনি আরও বলেন, আমি আসার পরে আমাকে ওনারা (ডিবির কর্মকর্তারা) বলে ওনাকে (মির্জা আব্বাস) নিয়ে যাব এখন। তার সঙ্গে কথা আছে। কথা বলে আমরা আবার দিয়ে যাব। তখন আমি তাদের বলি ‘দিয়ে যাবেন যখন তাহলে এখানেই কথা বলেন।’ তারা বলে যে, না, ওনাকে আমাদের সঙ্গে অফিসে যেতে হবে।

এদিকে মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে বাসা থেকে তুলে নেয়ার প্রসঙ্গে ডিবি প্রধান শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। সাংবাদিকদের ডিবি প্রধান বলেন, তাদের আটক বা গ্রেপ্তার নয়, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। আমরা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি।

আজকের সর্বশেষ সব খবর