শনিবার | ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

পুলিশ নিউজ পোর্টাল নিয়ে সদর দপ্তরের ব্যাখ্যা

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১




জার্নাল ডেস্ক ॥ বাংলাদেশ পুলিশের নিজস্ব সংবাদভিত্তিক অনলাইন পোর্টাল পুলিশ নিউজ চালুর বিষয়ে একটি ব্যাখ্যা দিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। বাংলাদেশ পুলিশের নিজস্ব সংবাদভিত্তিক অনলাইন পোর্টাল ‘পুলিশ নিউজ’ যাত্রা করেছে ১ সেপ্টেম্বর। এ নিয়ে নানা ধরনের প্রশ্ন ও কৌতূহল রয়েছে পাঠকদের মনে। এবার সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে পুলিশ নিউজের আত্মপ্রকাশ প্রসঙ্গে জানানো হলো।

পুলিশ সদর দপ্তর থেকে পুলিশ নিউজের সম্পাদক ও প্রকাশক মো. কামরুজ্জামান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, “দুঃখজনকভাবে এ দেশে আড়াইশ বছরের ঔপনিবেশিক শাসন ও স্বাধীনতা উত্তর এক শ্রেণির মানুষের ভেতর গড়ে ওঠা সাংঘর্ষিক ও নেতিবাচক রাজনৈতিক সংস্কৃতি চর্চার ফলে জনগণ ও পুলিশের মধ্যে অনাস্থার একটি অদৃশ্য দেয়াল গড়ে উঠেছে। বাংলাদেশ পুলিশ সেই দেয়াল ভেঙে ফেলতে চায়। পুলিশ আরও মানুষের কাছে যেতে চায়। সাধারণ মানুষ যাতে পুলিশ বিভাগসহ সরকারের অন্য বিভাগগুলোর সর্বোচ্চ সেবা পায় সেটা আমরা নিশ্চিত করতে চাই। এ কারণেই পুলিশ নিউজের স্লোগান ঠিক করা হয়েছে ‘জনতার সাথে প্রগতির পথে’। ”

সাইটটির সংবাদ সংগ্রহ প্রসঙ্গে বলা হচ্ছে, “পুলিশ নিউজ মূলত চারটি প্রধান উৎস থেকে সংবাদ সংগ্রহ করবে। সেগুলো হলো: পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিট, বাংলাদেশের স্থানীয় গণমাধ্যম, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদ ও পুলিশ নিউজের নিজস্ব রিপোর্টার্স টিম।”

“লক্ষণীয় বিষয় হলো, দেশে প্রায়ই নেতিবাচক খবরকে ‘বিক্রয়যোগ্য’ পণ্য হিসেবে বিবেচনায় নেওয়ার এক ধরনের প্রবণতা আছে। সে প্রেক্ষাপটে দেশের জন্য যা কিছু কল্যাণকর, যা কিছু ভালো, সেগুলোকেই সামনে আনার চেষ্টায় থাকবে পুলিশ নিউজ।”

“এ কারণেই উদ্বোধনের সময় পুলিশ নিউজ-এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার) পরিষ্কারভাবে বলেছেন, ‘পুলিশ নিউজ হবে পজিটিভ বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন, অর্জন ও অগ্রগতির খবরাখবর তুলে ধরা হবে এখানে।’

ভুলে গেলে চলবে না, দেশব্যাপী পুলিশ বিভাগের বিরাট কর্মযজ্ঞ চলে। প্রতিদিন অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ঘটে। অসংখ্য আসামি ধরা পড়ে। অনেক মাদক উদ্ধার হয়। অনেক ক্লুলেস মামলায় নাটকীয়ভাবে আসামি ধরা পড়ে। এসব ঘটনা সংক্রান্ত খবরের অতি ক্ষুদ্রাংশ পত্রপত্রিকায় ছাপা বা টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে সম্প্রচারিত হয়। বাকি সব খবর সবার নজরের বাইরে থেকে যায়। কিন্তু পুলিশ বাহিনী প্রতিদিন কী করছে, কতটুকু সফলতা অর্জন করতে পারছে আর দায়িত্ব পালনে কতটুকু ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে তার হালনাগাদ চিত্র জনগণের জানা দরকার বলে আমরা মনে করছি।”

বলা হচ্ছে, এই পোর্টালের মাধ্যমে সারা দেশের অপরাধ দমন, আইনশৃঙ্খলা ও দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়াবলির একটি বিরাট অংশ তুলে ধরা হবে। এর মধ্য দিয়ে সাধারণ পাঠক বাংলাদেশ পুলিশের আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত দৈনন্দিন কাজের হালনাগাদ চিত্র সহজেই পেয়ে যাবে। এতে সাধারণ মানুষ দেশের সার্বিক নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলা সম্পর্কে একটি স্বচ্ছ ধারণা পাবে।

সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতা প্রসঙ্গে বলা হয়, “যেহেতু এটি সরকারি সূত্র (গভর্নমেন্ট সোর্স), সেহেতু এর বস্তুনিষ্ঠতা বা সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন থাকার সুযোগ নেই। সে কারণে অন্য সংবাদমাধ্যমগুলো পুলিশ নিউজকে সূত্র হিসেবে ব্যবহার করতে পারবে। অন্য সংবাদমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের যে তথ্য জানার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হতো, পুলিশ নিউজের কারণে অনেক ক্ষেত্রেই সে ঝামেলা থেকে ওই সাংবাদিকেরা মুক্ত হতে পারবেন। এটি যেহেতু বাংলাদেশ পুলিশের নিউজ পোর্টাল, সেহেতু এখানকার খবরে উল্লেখিত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বক্তব্যকে সহজেই উদ্ধৃতি হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন।”

মিডিয়াতে পুলিশ বিভাগের উপস্থিতি পুরোনো উল্লেখ করে মো. কামরুজ্জামান বলেন, মিডিয়াতে বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগের সরব উপস্থিতি অর্ধশতাধিক বছরেরও বেশি পুরোনো। এক সময়ের সাড়া জাগানো পুলিশের পত্রিকা ডিটেকটিভ’ ৬৪ বছর ধরে নিয়মিত প্রকাশিত হয়ে আসছে। এখনো পত্রিকাটি সাফল্যজনকভাবে পাঠকপ্রিয়তা ধরে রেখেছে। এর বাইরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ডিএমপি নিউজ নামের যে নিউজ পোর্টাল চালাচ্ছে তা ইতিমধ্যে যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। জাতীয় দৈনিক ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের গুরুত্বপূর্ণ সূত্র হয়ে উঠেছে ডিএমপি নিউজ। এ পর্যন্ত চার কোটির বেশিবার এই পোর্টালের খবর পড়া হয়েছে।

পুলিশ নিউজের মতো পোর্টাল বাংলাদেশ পুলিশই যে প্রথম করেছে তা নয়। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়াসহ পৃথিবীর বড় বড় গণতন্ত্রের দেশে পুলিশের নিজস্ব নিউজ সাইট আছে। সেখানে তারা তাদের কার্যক্রম ও অগ্রগতি সংক্রান্ত খবর প্রচার করে থাকে।

তিনি বলেন, “সরকারি বিদ্যমান নীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে জনগণের কল্যাণকর সংবাদগুলো প্রচার করা, বাংলাদেশ পুলিশের সামগ্রিক কর্মকাণ্ড পুলিশ নিউজের মাধ্যমে তুলে ধরা, প্রোঅ্যাকটিভ পুলিশিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় সংবাদগুলো গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার করা, সাধারণ মানুষের জীবনঘনিষ্ঠ সমস্যা এবং সেগুলোর জুতসই সমাধানের কথা তুলে ধরা-এগুলোই হবে পুলিশ নিউজের কাজ। আর এই কাজ থাকবে দৃশ্যমান অবস্থায়। এখানে লুকোছাপার কোনো সুযোগ থাকছে না। এই পোর্টালে রাজনৈতিক বিষয় আশয় বলা যায় থাকছেই না। আমাদের সংবাদের ক্যাটাগরিতে অন্য পোর্টালগুলোর মতো ‘রাজনীতি’ নামে কোনো ক্যাটাগরিই থাকছে না। ফলে পুলিশ নিউজের পথ চলায় পুলিশের রাজনৈতিক বা অন্য কোনো অভিলাষের গন্ধ খুঁজতে যাওয়া সমীচীন হবে না।”

আর বলেন, সবচেয়ে বড় কথা, পুলিশ নিউজ সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে নীতি নৈতিকতা অনুসরণ করবে। চটকদার ও বস্তুনিষ্ঠতা বিবর্জিত স্রেফ দৃষ্টি আকর্ষক খবর এখানে প্রকাশিত হবে না। বাংলাদেশ পুলিশের এগিয়ে যাওয়া, দেশের মানুষের এগিয়ে যাওয়া তথা বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার খবর এখানে প্রাধান্য পাবে। এ সমস্ত দিক বিবেচনায় নিয়ে পুলিশ নিউজ তার যাত্রা শুরু করেছে। সে ক্ষেত্রে এই সংবাদমাধ্যম কোনো আপস করবে না।