সোমবার | ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত : এপ্রিল ১, ২০২১




স্পোর্টস ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টা ৪২ মিনিটে ভার্চুয়ালি উপস্থিত থেকে দেশের সবচেয়ে বড় এই ক্রীড়াযজ্ঞের শুভ উদ্বোধন করেন। বিকেল সাড়ে ৫টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হয় বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে যোগ দেন পৌনে ৭টায়।

প্রধানমন্ত্রী যোগ দেওয়ার পরেই ভিডিও ভিজ্যুয়াল প্রদর্শনীর মাধ্যমে তুলে ধরা হয় দেশের খেলাধুলা বিভিন্ন দিক। এরপর সব বিভাগের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা মাঠে প্রবেশ করেন মার্চপোস্টের মাধ্যমে।

মার্চপাস্টের পর শপথবাক্য পাঠ করান তীরন্দাজ রোমান সানা। ৩১টি ইভেন্টের খেলোয়াড়রা প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন জানান। এ সময় প্রধানমন্ত্রী হাত নেড়ে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান। এবার স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শাহেদ রেজা। তারপর বিওএ সভাপতি ও গেমসের সাংগঠনিক কমিটির নির্বাহী চেয়ারম্যান জেনারেল আজিজ আহমেদ শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন। এ ছাড়া বক্তব্য দিয়েছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

এ সব আনুষ্ঠানিকতার পরেই উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী বক্তব্যে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমাদের এই আয়োজনটা ছিল মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ২০২০ সালে। করোনার কারণে হঠাৎ তখন স্থগিত করে এবার আয়োজন করছি। যদিও আবার নতুন করে করোনা দেখা দিয়েছি। আমি চাইবো সকলে স্বাস্থ্য সুরক্ষার দিকটা নজরে রেখে, সমস্ত খেলা নিশ্চিত করবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু গেমসের মশাল প্রজ্জ্বালন হয়েছে টুঙ্গিপাড়া থেকে। যে মাটিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু জন্মগ্রহণ করেছিলেন, সে মাটিতেই তিনি ঘুমিয়ে আছেন। সেখান থেকে গেমসের মশাল প্রজ্জ্বালিত হয়, পরে তা ঢাকা নিয়ে আসে। সেখানে নবম বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের মশাল প্রজ্জ্বালিত হওয়াতে আমি অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনসহ আয়োজনে সম্পৃক্ত সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। খেলাধুলার প্রতি সব সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সব সময় আন্তরিকতা ছিল। তিনি নিজেও খেলতেন, সকলকে খেলতেও অনুপ্রেরণা দিতেন। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আমি বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করলাম।’

এর আগে প্রধানমন্ত্রী বলেন যে, তিনি স্বশরীরেই গেমস উদ্বোধন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু করোনার কারণে পারেননি, ‘আমি নিজে মাঠে গিয়ে সবাইকে দেখতে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু করোনার কারণে পারিনি, সে জন্য আমার মন খারাপ। আমি কথা দিয়েছিলাম বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করবো। তাই ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করতে হলো।’

৮ বছর আগে ২০১৭ সালে সর্বশেষ বাংলাদেশ গেমস হয়েছিল। এর মধ্যে দিয়ে ভাঙলো দীর্ঘদিনের অচলায়াতন। আজ থেকে শুরু হওয়া বাংলাদেশ গেমসের এই আসর চলবে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত। এক যোগে আট বিভাগের ২৯টি ভেন্যুতে চলবে খেলা। ৩১টি খেলায় মোট ইভেন্ট সংখ্যা ৩৭৮টি। ১২৭১টি পদকের জন্য লড়বেন প্রায় ৮ হাজার খেলোয়াড়।

তবে কিছু কিছু খেলা শুরু হয়ে গেছে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই। মেয়েদের ক্রিকেট চালু হয়ে শেষ হয়ে গেলেও চলছে পুরুষ ও মহিলা ফুটবল। আর গতকাল শুরু হয়েছে হকি ও ফেন্সিং।

এই বিভাগের আরো নিউজ

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
আজকের সর্বশেষ সব খবর