শনিবার | ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বঙ্গমাতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সার্বক্ষণিক সহযোদ্ধা ॥ এমপি আবু জাহির

প্রকাশিত : আগস্ট ৮, ২০২১




স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি বলেছেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সার্বক্ষণিক সহযোদ্ধা। স্বাধীনতার ডাক, অর্থাৎ ৭ মার্চের ভাষণের আগমুহূর্তে বঙ্গমাতাই জাতির পিতাকে চূড়ান্ত অনুপ্রেরণা জুগিয়েছিলেন। জাতির পিতার আমৃত্যু সঙ্গী মহীয়সী নারী, দেশের স্বাধীনতাসহ সব গৌরব অর্জনের নেপথ্য প্রেরণাদাত্রী তিনি।

রোববার (৮ আগস্ট) হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর সহধর্মিণী ও প্রেরণাদাত্রী মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এঁর ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সেলাই মেশিন বিতরণ ও পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

আবু জাহির বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির দীর্ঘ মুক্তিসংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়ে শুধু বাঙালির জাতির পিতাই হননি, তিনি হয়ে উঠেছিলেন বিশ্ববরেণ্য রাজনীতিবীদ ও রাষ্ট্রনায়ক। আর এর পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তার সহধর্মিনী ও বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের সহযোদ্ধা বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব।

সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মোহাম্মদ নাজমুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মিন্টু চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোঃ আলমগীর চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বর্ণালী পাল, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহবুবুল আলম প্রমুখ।

পরে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে হবিগঞ্জে ৬৩ নারীকে সেলাই মেশিন ও ২০ জন অস্বচ্ছল ব্যক্তিকে ২ হাজার করে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। একই সঙ্গে কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ৩ শিক্ষার্থীকে পুরস্কার দেয়া হয়।

আজকের সর্বশেষ সব খবর