শুক্রবার | ২৭শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বদলে গেলো অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সঙ্গীত

প্রকাশিত : জানুয়ারি ৪, ২০২১




আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সে দেশের আদিবাসীদের বসবাসের ইতিহাস কয়েক হাজার বছরের। অথচ, অভিযোগ উঠেছিলো, দেশের এই আদিম জনগোষ্ঠীর যথাযথ প্রতিনিধিত্ব প্রতিফলিত হচ্ছিলো না অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সঙ্গীতে। তাই সেই সব আদিম জনগোষ্ঠীর মানুষদের সম্মান জানানোর জন্যই বদলটি এলো।

কী রকম বদল? অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সঙ্গীতের দ্বিতীয় পঙক্তিটি ছিলো- ‘আমরা তরুণ ও মুক্ত’। এবার থেকে এই অংশ পরিবর্তন করে গাওয়া হবে ‘আমরা এক ও মুক্ত’।

যারা আপত্তি তুলেছেন, তাদের মত হল, ‘তরুণ’ শব্দটি দিয়ে যেন বোঝানো হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাস শুরু হচ্ছে উপনিবেশের সময় থেকেই। যা প্রকৃত সত্য নয়।

বিষয়টির প্রসঙ্গে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন জানান, জাতি হিসেবে তুলনামূলক নবীন হলেও এ দেশের আদিবাসীদের জড়িয়ে তাদের এক প্রাচীন ইতিহাস রয়েছে।

ইতিহাস বলছে, ১৭৮৮ সালে প্রথম ব্রিটেনের জাহাজ অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে নোঙর করে। যার মধ্য দিয়ে পরবর্তীকালে নবীন এই রাষ্ট্রের উত্থান। তবে সেখানে আদিবাসীদের বসবাসের অতি প্রাচীন ইতিহাসও স্বীকৃত।

আদিবাসীদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সঙ্গীতে বদলের দাবি ছিলো অনেক দিনেরই। তবে রাজনৈতিক বিরোধিতায় এ পরিবর্তন এতোদিন সম্ভব হয়নি।

অস্ট্রেলিয়ার আদিবাসীরা নানাভাবেই সামাজিক বৈষম্য ও লাঞ্ছনার শিকার। সে দেশে আদিবাসী শিশুমৃত্যুর হারও দেশটিতে বাস করা অন্য জনগোষ্ঠীর চেয়ে বেশি। সে দেশের প্রেক্ষিতে খুবই বড় ঘটনা। নতুন বছর থেকেই সে দেশে নতুন রূপে গাওয়া হবে জাতীয় সঙ্গীত।

আজকের সর্বশেষ সব খবর