বুধবার | ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বিএনপিবিহীন ৩ সংসদীয় আসনে ১৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

প্রকাশিত : জুন ১৫, ২০২১




জার্নাল ডেস্ক ॥ আগামী ২৮ জুলাই অনুষ্ঠেয় ঢাকা-১৪, সিলেট-৩ ও কুমিল্লা-৫ সংসদীয় শূন্য আসনের উপনির্বাচনে মোট ১৪ জন প্রার্থী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ১৪ জন প্রার্থীর মধ্যে পাঁচটি রাজনৈতিক দলের আট জন এবং ছয় জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী এই নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেননি।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) এই তিনটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

তিনটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে অংশ নেওয়া পাঁচটি রাজনৈতিক দল হলো- ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), বাংলাদেশ কংগ্রেস ও বিএনএফ। এই পাঁচ দলের আট প্রার্থীর বাইরে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া বাকি ছয় জন স্বতন্ত্র।

ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে ছয় জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা হলেন— বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী আগা খান মিন্টু, জাতীয় পার্টির মোস্তাকুর রহমান, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) অ্যাডভোকেট আবু হানিফ, বিএনএফ থেকে এ ওয়াই এম কামরুল ইসলাম। এই আসনে স্বতন্ত্র পার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মনিরুজ্জামান ও রুহুল আমীন।

সিলেট-৩ সংসদীয় আসনেও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ছয় জন প্রার্থী। তাদের মধ্যে রয়েছেন— বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান, জাতীয় পার্টির মো. আতিকুর রহমান ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ফাহমিদা হোসেন, আলহাজ শফি আহমেদ চৌধুরী ও শেখ জাহিদুর রহমান মাসুম।

কুমিল্লা-৫ সংসদীয় আসনে মাত্র দু’জন প্রার্থী মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাদের একজন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল হাসেম খান, আরেকজন সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. জসিম উদ্দিন।

এর আগে, গত ২ জুন সিলেট-৩, ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ শূন্য সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৪ জুলাই এই তিন আসনের উপনির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। পরে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনায় নির্বাচন ২ সপ্তাহ পিছিয়ে ২৮ জুলাই তারিখ নির্ধারণ করেছে ইসি।

তিন সংসদীয় আসনই সংসদ সদস্যের মৃত্যুজনিত কারণে শূন্য হয়ে যায়। এর মধ্যে সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১১ মার্চ রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা যান। ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান গত ৪ এপ্রিল। কুমিল্লা-৫ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান গত ১৪ এপ্রিল। তারা তিন জনই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ছিলেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর