বৃহস্পতিবার | ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

যেদিন সময় হবে এই চেয়ার থেকেও চলে যাব: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত : নভেম্বর ১১, ২০২২




জার্নাল ডেস্ক ॥ টানা তিন মেয়াদে ১৪ বছর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকায় দেশের উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘তবে অনেক দিন তো হয়ে গেল। মানুষকে তো একসময় বিদায় নিতেই হবে। এটা তো আল্লাহই বলে দিয়েছেন। সেটাও আল্লাহর ইচ্ছা, যেদিন যেতে হয় চলে যাব। মানে…এখান থেকেও… এই চেয়ার থেকেও চলে যাব, আবার জীবন থেকেও চলে যাব। যেতেই হবে। এটা হলো বাস্তবতা। যেদিন যাওয়ার সময় হবে। আর সময় না হলে তত দিন তো কাজ করতেই হবে। আল্লাহ যতক্ষণ সুযোগ দিয়েছেন।’আসন্ন শীত মৌসুমে শীতার্ত মানুষের সহায়তায় কম্বল ও শীতবস্ত্র প্রদানের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণভান্ডারে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুদান গ্রহণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০১৪-তে এবং ২০১৮-তে জয়ী হয়ে এই একটানা আজকে ১৪ বছর থাকাতে, দীর্ঘ সময়টা থাকাতে আজকে অন্তত বাংলাদেশের উন্নয়নটা আমরা করতে পারছি।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হত্যা, ক্যু, ষড়যন্ত্র এটা তো আমাদের দেশে লেগেই আছে। আমাদের তো ধারাবাহিক গণতান্ত্রিক ধারা থাকে না এই দেশে। যার জন্য একটা স্থিতিশীল পরিবেশও কখনো আসেনি। যে জন্য সার্বিক উন্নতিটা ঠিক হয়নি। কাজেই যেকোনো সময় যেকোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তারপরও আমার প্রচেষ্টা থাকবে, আমি যতটুকু আছি আমরা চেষ্টা করে যাব।’

সরকারপ্রধান আরও বলেন, আজকে অন্তত এইটুকু বলতে পারি যে এই দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার ফলে এবং আমি ধন্যবাদ জানাই যে প্রত্যেক নির্বাচনের আগেও আমি সব ব্যবসায়ী মহলের মানে… সমর্থন পেয়েছি।

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের সঙ্গে আন্তর্জাতিক এক অনুষ্ঠানে কথোপকথনের স্মৃতিচারণা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি, রেহানা (শেখ রেহানা), প্রধানমন্ত্রী মাহাথির ও তাঁর স্ত্রী আমরা বসে এক কোনায় গল্প করছি। উনি বললেন, আসলে দেশের একটা উন্নতি করতে হলে একটু দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় না থাকলে উন্নতিটা ঠিকমতো হয় না, করা যায় না। এই কথাটা কিন্তু তিনি আমাকে বলেছিলেন।’

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘আমি বললাম, দেখেন জনগণ কতক্ষণ ভোট দেবে না দেবে সেটা তো বলতে পারি না। যদি ভোট পাই হয়তো থাকব। কারণ আমাদের দেশে তো পরিবেশটা অন্য রকম। দীর্ঘদিন সামরিক শাসক, কখনো সরাসরি কখনো পরোক্ষভাবে ক্ষমতা দখল করে আবার উর্দি খুলে রাজনীতিবিদ হয়।’

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (বিএবি) চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মজুমদার। ব্যাংকসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা এতে উপস্থিত ছিলেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর