বৃহস্পতিবার | ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

স্বাধীনতা দিবসে ‘নদীর স্বাধীনতা চাই’ শীর্ষক সভা

প্রকাশিত : মার্চ ২৬, ২০২৩




স্টাফ রিপোর্টার ॥ মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হলেও এদেশের নদীগুলো স্বাধীন নয়। প্রতিবেশী দেশের নদী শাসন এর ফলে ও দেশীয় দখলদারদের অপতৎপরতার কারণে বাংলাদেশের নদীগুলো আজ পরাধীন। তাই দেশের নদীগুলোর স্বাধীনতার দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে।

মহান স্বাধীনতা দিবসে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ শাখা ও খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার এর উদ্যোগে চাকমাঘাট ব্যারেজের কবল থেকে ‘খোয়াই নদীর স্বাধীনতা চাই’ শীর্ষক সভায় বক্তারা একথা বলেন।

আজ ২৬ মার্চ ২০২৩ রবিবার দুপুর ২ টায় খোয়াই ব্রিজের পার্শ্ববর্তী নৌকা ঘাটে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বাপা হবিগঞ্জ শাখার সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী মমিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মূল বক্তব্য রাখেন বাপা হবিগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক ও খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার তোফাজ্জল সোহেল। বক্তব্য রাখেন, হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক কমিশনার হাবিবুর রহমান, বাপা হবিগঞ্জের যুগ্ম সম্পাদক সিদ্দিকী হারুন, পরিবেশকর্মী সাইফুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, নাসরিন আলম, নদী তীরের বাসিন্দা মো: আল আমিন, নৌকার মাঝি মো: সাইদুর, মো: মহরম আলী প্রমুখ।

তোফাজ্জল সোহেল বলেন, আন্তর্জাতিক পানি বন্টন আইন লঙ্ঘন করে ভারত সরকার খোয়াই নদীর উপর ব্যারেজ নির্মাণ করেছে। যে কারণে হুমকির মুখে পড়েছে হবিগঞ্জের নদীকেন্দ্রিক পরিবেশ। ‘৯০ দশকের মাঝামাঝি সময়ে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের তেলিয়ামুড়া এলাকায় খোয়াই নদীর উপর ‘চাকমা ঘাট’ ব্যারেজ নির্মাণ করা হয়। এর ফলে শুকনো মৌসুম খোয়াই নদীর পানি আশঙ্কাজনক হারে কমে যায় এবং বর্ষা মৌসুম ব্যারেজ খুলে দেওয়ার কারণে দেখা দেয় বান -বন্যার। ভারত সরকার অনিয়মতান্ত্রিকভাবে নদীর স্বাভাবিক গতিপথ বন্ধ করে বাংলাদেশকে বঞ্চিত করে খোয়াই নদীর সুফল ভোগ করছে।

সভা শেষে প্রতীকী কর্মসূচি হিসেবে খোয়াই নদীতে কাগজের নৌকা ভাসানো হয়।

আজকের সর্বশেষ সব খবর