সোমবার | ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রাক-বাজেট মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত : মে ৩১, ২০২২




স্টাফ রিপোর্টার ॥ এডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি বলেন, ‘যেখানেই পৌরসভার স্বার্থ ক্ষুন্ন হবে সেখানেই পৌরসভার স্বার্থ রক্ষায় মেয়র তার পরিষদ নিয়ে এগিয়ে যাবে।’তিনি বলেন, ‘পৌরসভায় অনেক জমি বেদখল রয়েছে। বেদখল জমিগুলো উদ্ধারে পৌরপরিষদ উদ্যোগ নেবে। আর সে উদ্যোগে দলমত নির্বিশেষে আমরা সহযোগিতা করবো। কোন ব্যক্তি বা মহল পৌরসভার জমি দখল করে নিয়ে যাবে তা’তো হতে পারে না! তাই পৌরসভা তাদের জমিগুলো দখলমুক্ত করে আয়বর্ধক প্রকল্প অব্যাহত রাখবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘ প্রাক বাজেট মতবিনিময় সভায় যে সমস্ত মূল্যবান পরামর্শ উঠে এসেছে সেগুলো আমলে নিয়ে পৌরসভা আগামী অর্থবছরের জন্য সুন্দর একটি বাজেট উপস্থাপন করবে বলে আমাদের প্রত্যাশা।’

তিনি মঙ্গলবার (৩১শে মে) পৌর টাউন হলে হবিগঞ্জ পৌরসভা আয়োজিত প্রাকবাজেট মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। হবিগঞ্জ পৌরসভার ২০২২-২০২৩ অর্থবছরেরর একটি বাস্তবসম্মত, সময়োপযোগী বাজেট প্রনয়নের লক্ষে পৌরএলাকার বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাবেক জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সামাজিক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক, আইনজীবী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে হবিগঞ্জ পৌরসভা।

মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম বর্তমান পরিষদের দায়িত্ব গ্রহনকালে পৌরসভার তহবিলের শোচনীয় অবস্থা তুলে ধরেন। পাশাপাশি একবছরে পৌরসভার শৃংখলা ফিনিয়ে এনে এবং বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহন করে অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা অর্জনের চিত্র উপস্থিত অতিথিবৃন্দের সামনে তুলে ধরেন। তিনি গত এক বছরে যে সমস্ত রাস্তা, ড্রেন নির্মাণসহ উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হয়েছে তার চিত্র উপস্থাপন করেন। মেয়র আতাউর রহমান সেলিম বলেন ‘হবিগঞ্জ পৌরসভার দীর্ঘদিনের সমস্যা হচ্ছে ডাম্পিং স্পটের অভাব। আমি আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী হবিগঞ্জ পৌরসভার উপদেষ্টা এডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপির প্রচেষ্টায় এবং হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় হবিগঞ্জ শহরের অদুরে রিচি ইউনিয়নের অন্তর্গত এলাকায় একটি ডাম্পিং স্পট গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছি। যা এখন বাস্তবায়নের দ্বার প্রান্তে। ইতিমধ্যে রাস্তা নির্মান হয়েছে। সলিংয়ের কাজও শীঘ্রই বাস্তবায়ন হবে। ভারী বৃষ্টিপাতের কারনে নতুন রাস্তা কিছুটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তাই সার্বিক কাজ কিছুটা বিলম্বিত হচ্ছে। তবে আগামী শুকনো মৌসুমের শুরুতেই বাইপাস সংলগ্ন আবর্জনার স্তুপ অবশ্যই আমরা নতুন ডাম্পিং স্পটে অপসারণ করবো।’

বিশেষ অতিথি ডাঃ মুশফিক হোসেন চৌধুরী পৌরসভার উন্নয়নে মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের নেতৃত্বে বর্তমান পৌরপরিষদের কর্মকান্ডে সন্তোষ প্রকাশ করে পৌরবাসীর নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধিতে কর্মকান্ড আরো জোরদার করার পরামর্শ দেন।

বিশেষ অতিথি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী গত এক বছরে বর্তমান পৌরপরিষদের কর্মকান্ড পর্যালোচনা করে বলেন ‘বড় খাল ও ড্রেনগুলো খনন ও পরিস্কার করার ফলে পৌর এলাকায় দ্রুততম সময়ে বৃষ্টির পানি নিস্কাশিত হয়েছে। কোথাও বড় ধরনের কোন জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়নি।’ তিনি আগামী বাজেটে নাগরিক সুবিধা ও উন্নয়নে বরাদ্দ বাড়িয়ে পৌরবাসীর জন্য আরো উন্নত পরিবেশ সৃষ্টির পরামর্শ দেন।

হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিমের সভাপতিত্বে প্রাক-বাজেট মতবিনময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন প্রফেসার ইকরামুল ওয়াদুদ, জাপা নেতা শংকর পাল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জগদীশ চন্দ্র মোদক, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট সালেহ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোছাব্বির বকুল ও হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি রাসেল চৌধুরী। মতবিনিময় সভয় আরো উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ বৃন্দাবন সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ ইলয়াছ বখত চৌধুরী জালাল, হবিগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রীর সভাপতি মিজানুর রহমান শামীম, হবিগঞ্জ ক্লিনিক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল বারী আওয়াল, মটর মালিক গ্রুপের সভাপতি মোঃ ফজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শংখ শুভ্র রায়, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোঃ শামছুল হুদা, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ আহমেদ খান প্রমুখ।

হবিগঞ্জ পৌরসভার ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বিবরনী উপস্থাপন করেন হবিগঞ্জ পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ফয়েজ আহমেদ। মতবিনিময় সভায় পৌরসভার কাউন্সিলরদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন পান্ন কুমার শীল, মোহাম্মদ জুনায়েদ মিয়া, গৌতম কুমার রায়, টিপু আহমেদ, শাহ সালাউদ্দিন আহাম্মদ টিটু, সাফিকুর রহমান সিতু, প্রিয়াংকা সরকার, খালেদা জুয়েল ও শেখ সুমা জামান।#

আজকের সর্বশেষ সব খবর