শনিবার | ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরীর পিতার মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত : জুন ২২, ২০২১




স্টাফ রিপোর্টার॥ হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরীর পিতা মরহুম ম্যাজিস্ট্রেট আলাউদ্দিন চৌধুরীর ৬২তম মৃত্যুবার্ষিকী ছিল ২৩ জুন মঙ্গলবার।

এ উপলক্ষে ওই দিন বাদ মাগরিব মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে হবিগঞ্জ আহছানিয়া মিশনে এতিমদের নিয়ে সামাজিক দুরত্ব মেনে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করে মরহুমের পরিবার।

মরহুম আলাউদ্দিন চৌধুরী ১৮৯০ সালের ২০ জুলাই হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার পিয়াইম গ্রামে সম্ভান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম আফতার উদ্দিন চৌধুরী ছিলেন একজন স্বনামধন্য মুসলিম জমিদার।

মরহুম আলাউদ্দিন চৌধুরী ১৯১১ সালে আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গোল্ড মেডেলসহ বিএ পাশ করেন। ১৯১২ সালে তিনি অবিভক্ত বাংলার সিভিল সার্ভিসে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে চাকুরীতে যোগদান করেন। চাকুরী জীবনে তিনি সিলেট, মৌলভীবাজার,সুনামগঞ্জ,ভারতের করিমগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলা ও মহুকুমায় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ছিলেন তৎকালীন হবিগঞ্জ মহুকুমার ২য় গ্র্যাজুয়েট। মৃত্যুকালে তিনি ৬ ছেলে ও ৪ মেয়ে রেখে যান।

মরহুম আলাউদ্দিন চৌধুরীর ১ম ছেলে ইঞ্জিনিয়ার মরহুম ওয়াহিদ উদ্দিন চৌধুরী ছিলেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী। ২য় ছেলে আশফাক উদ্দিন চৌধুরী দেশ ও বিদেশে বিভিন্ন ব্যাংকে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন। ৩য় ছেলে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী হবিগঞ্জ সরকারী বৃন্দাবন কলেজের ছাত্র সংসদের ভিপি ও হবিগঞ্জ পৌরসভার পরপর ৫বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি মুক্তিযুদ্ধকালীন সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি ছিলেন। সর্বজন শ্রদ্ধেয় শহীদ উদ্দিন চৌধুরী আওয়ামী লীগের জাতীয় ও জেলা কমিটির জনপ্রিয় নেতা। ৪র্থ ছেলে মরহুম সমশাদ উদ্দিন চৌধুরী হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন। তিনি মাত্র ৩৫ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। ৫ম ছেলে মহিউদ্দিন চৌধুরী একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। ৬ষ্ঠ ছেলে জকি উদ্দিন চৌধুরী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ও বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা। তিনি নিউইয়র্কে হবিগঞ্জ এসোসিয়েশনের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

মরহুম আলাউদ্দিন চৌধুরীর চাচাত ভাই মরহুম নাছির উদ্দিন চৌধুরী ছিলেন যুক্তফ্রন্ট সরকারের আইনমন্ত্রী এবং ভাইয়ের ছেলে নাজেম আহমেদ চৌধুরী সিএসপি অফিসার হিসাবে সরকারের বাণিজ্য সচিব ও যোগাযোগ সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন শেষে অবসর গ্রহণের পর পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। তার আত্মীয়-স্বজনরা স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্টিত।

আজকের সর্বশেষ সব খবর