বুধবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

হামজার ছেলে সেই উপসচিবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চান প্রস্তাবকারী সচিব

প্রকাশিত : এপ্রিল ১, ২০২২




অনলাইন ডেস্ক॥ স্বাধীনতা পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন বাতিল হওয়া আমির হামজার ছেলে উপসচিব মো. আছাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, যিনি স্বাধীনতা পুরস্কারের জন্য হামজার নাম প্রস্তাব করেছিলেন।

আমির হামজার বাড়ি মাগুরায়। সাহিত্যে স্বাধীনতা পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল মাগুরার বাসিন্দা মরহুম আমির হামজাকে। তাঁর নাম সুপারিশ করেছিলেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ। পরে ব্যাপক সমালোচনার মুখে আমির হামজার মনোনয়ন বাতিল করে সরকার। বাবার নাম সুপারিশের জন্য বাণিজ্য সচিবের কাছে গিয়েছিলেন উপসচিব আছাদুজ্জামান। তিনি বর্তমানে খুলনা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত।

আমির হামজার দুটো গানের বই প্রকাশ হয়েছিল, যার মধ্যে একটি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা। তার এসব লেখার কোনোটিই সাহিত্যগুণ বিচারে মানোত্তীর্ণ নয়। তাকে নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হতে থাকলে এক পর্যায়ে জানা যায়, তিনি হত্যা মামলার আসামি ছিলেন। এর পর সরকার তার মনোনয়ন বাতিল করে।

আমির হামজার ছেলে প্রশাসনের ২৪ ব্যাচের কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান খুলনা জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি নিজের বাবার নাম সুপারিশের জন্য বাণিজ্য সচিবের দারস্থ হয়েছিলেন।

আমির হামজার মনোনয়ন বাতিল করে তার বিষয়ে তথ্য গোপন করায় পদক্ষেপ নিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে তপন কান্তি ঘোষকে চিঠি দেওয়া হয়। তিনি এ বিষয়ে আসাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জনপ্রশাসন সচিবকে চিঠি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য বাণিজ্য সচিবের মোবাইলে ফোন দিলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ সরকার ২০২২ সালের স্বাধীনতা পুরস্কারের জন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে গৌরবোজ্জ্বল ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রাখা ১০ ব্যক্তি ও ১টি প্রতিষ্ঠানকে মনোনীত করে। ১৮ মার্চ সংশোধিত তালিকায় ব্যক্তি পর্যায়ে নয় জনকে স্বাধীনতা পুরস্কার দেওয়া হয়

আজকের সর্বশেষ সব খবর