বৃহস্পতিবার | ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

২য় ডাম্পিং স্পটের জমি কেনার চুক্তি করলেন মেয়র আতাউর রহমান সেলিম

প্রকাশিত : আগস্ট ৩১, ২০২২




স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরের নতুন ষ্টেডিয়াম বাইপাস সড়কের পাশে আবর্জনার স্তুপ অপসারনের জন্য ২য় ডাম্পিং স্পটের জামি কিনেছে হবিগঞ্জ পৌরসভা। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহানের কার্যালয়ে অগ্রিম অর্থ প্রদানের মাধ্যমে ওই জমির চুক্তি করেন মেয়র আতাউর রহমান সেলিম।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক বিজেন ব্যানার্জী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মিন্টু চৌধুরী, সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ ইয়াসিন আরাফাত রানা, পৌরকাউন্সিলর মোঃ জাহির উদ্দিন, গৌতম কুমার রায়, টিপু আহমেদ, শাহ সালাউদ্দিন আহাম্মদ টিটু, মোঃ সফিকুর রহমান সিতু, শেখ সুমা জামান, রিচি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রীর সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান শামীম ও পৌর সচিব মোঃ ফয়েজ আহমেদ।

উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ পৌরসভার বর্জ্য অপসারণের জন্য পৌরসভার নিজস্ব ডাম্পিং স্পট বাস্তবায়ন শহরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী ছিল। মেয়র আতাউর রহমান সেলিম দায়িত্ব গ্রহনের পর পরই রিচি ইউনিয়নের অধীনে ২শ শতক জমিতে ডাম্পিং স্পট বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়। ডাম্পিং স্পটটি শহরের আলম বাজারের পশ্চিমে প্রায় সাড়ে ৪ কিলোমিটার দুরে। মুল ডাম্পিং স্পটের কাজ শেষ করে চালু করা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার হওয়ায় পৌরকর্তৃপক্ষ জরুরী ভিত্তিতে ২য় ডাম্পিং স্পটের জন্য ১৩৭ শতক জমি নির্ধারণ করে। আলম বাজার হতে একই রাস্তায় ওই জমির দূরত্ব প্রায় ২ কিলোমিটার।

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি ইউনিয়নের মির্জাপুর উত্তর মৌজায় ওই ডাম্পিং স্পট দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে জানিয়েছে হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রকৌশল বিভাগ। নতুন ষ্টেডিয়াম বাইপাসের পাশের আবর্জনা যাতে দ্রুত অপসারণ করা যায় সেই লক্ষ্যে ২য় ডাম্পিং স্পটের জমি ক্রয় করা হলো। এর ফলে আসছে শুকনো মওসুমে ২য় ডাম্পিং স্পটের কাজ চালু করা হবে বলে জানিয়েছে পৌরসভা অফিস। এটি বাস্তবায়ন হলে শহরের বাইপাসে অবস্থিত দীর্ঘদিনের আবর্জনার স্তুপ অপসারণ করা সম্ভব হবে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর