মঙ্গলবার | ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

ডেইরী খামার দেয়ার স্বপ্ন দেখছেন উদ্যমী উদ্যোক্তা বানিয়াচংয়ের ইসলাম উদ্দিন

প্রকাশিত : জুলাই ১৩, ২০২১




শিব্বির আহমদ আরজু, বানিয়াচং থেকে : মোঃ ইসলাম উদ্দিন (৩৯)। পেশায় ছিলেন রাজমিস্ত্রি ও ঠিকাদার। মৎস্য বিভাগের প্রতি সরকারের প্রচুর আগ্রহের কারণে মনের অজান্তেই নিজেও আগ্রহি হয়ে উঠেছেন এ পেশার প্রতি। যেইভাবা সেই কাজ। ৩ বছর আগে প্রায় ২৫ লাখ টাকা ব্যয় করে ১৫০ শতক ভূমির উপর পুকুর দিয়েছেন। ইসলাম উদ্দিন উপজেলা সদরের ৩নং দক্ষিণ-পূর্ব ইউনিয়নের অন্তর্গত ৮নং ওয়ার্ডের ঢালি মহল্লা গ্রামের আব্দুল মতিন এর ছেলে। ৬ ভাই ও ২ বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুকুরে টলটল করছে স্বচ্ছ পানি। বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করছেন তিনি। চারপাড়ে রয়েছে বিভিন্ন ফলজ, বনজ ও ঔষধি গাছ। মাঝে-মধ্যে কোন কোন গাছে ফলও এসেছে। বর্ষার দখিনা হাওয়ায় দুলছে সেই বাহারি রকমের গাছ-গাছালি। পুকুরের পাড়ে রয়েছে গরুর খামার, কোয়েল পাখির খামার ও পাওমি টাইগার নামে মোরগের খামার। সার্বক্ষণিক নিজেসহ ৩জন মানুষ কাজ করছেন। কোয়েল পাখির ডিমি তিনি নিজে বিক্রি করছেন। এতে করে চূড়ান্ত সফলতা না আসলেও লাভের মুখ দেখতে শুরু করেছেন। এতে কোন ক্লান্তি এবং হতাশা নেই ইসলাম উদ্দিনের। তার খামারের নাম হচ্ছে ‘ ইসলাম উদ্দিন এগ্রো ফিশারিজ এন্ড খামার’।

এ ব্যাপারে খামারি উসলাম উদ্দিন এ প্রতিনিধিকে জানান, আমি বেশিদিন হইনি এ পেশায় এসেছি। খামার এবং পুকুর দিতে গিয়ে অনেক টাকা ব্যয় করেছি। অনেক কষ্টও করে যাচ্ছি। আশা করি এর ফলাফলও পাব ইনশা আল্লাহ।বানিয়াচং মৎস্য অফিস থেকে সবধরণের সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছি। এতে করে সরকারি ঋণ পেলে বড় ধরণের ডেইরী খামার করার ইচ্ছা আছে। ফলে একদিকে সরকারও রাজস্ব পেল, অন্যদিকে তরুণ যুবকদের জন্য কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা হবে।

বানিয়াচং মৎস্য সমিতির একটি অংশের সভাপতি আব্দুল মান্নান জানান, ইসলাম উদ্দিন ভাই অত্যন্ত সৎ ও পরিশ্রমি মানুষ। পুকুর এবং খামারের দেখাশোনার জন্য সবসময় হাওড়ে অবস্থান করেন। এ মানুষটি সরকার থেকে ঋণ পেলে বড় ধরণের কিছু করতে পারবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

বানিয়াচং সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, সরকার চাচ্ছেন অন্যান্য বিভাগের ন্যায় মৎস্য বিভাগের মাধ্যমে দেশের যুবকশ্রেণিকে কাজে লাগাতে। এ লক্ষে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন সভা/ সেমিনারের মাধ্যমে যুবকশ্রেণিকে উদ্বুদ্ধ করার মাধ্যমে নানান কাজ করে যাচ্ছি। শিক্ষিত যুবকরাও চাকুরীর পায় না চেয়ে নিজেরাই উদ্যোক্তা হয়ে অর্থনৈতিকভাবে বেশ লাভবানও হচ্ছেন। এমনি একজন যুবক হচ্ছেন বানিয়াচংয়ের ইসলাম উদ্দিন। তার উত্তরোত্তর- সফলতা-সমৃদ্ধি কামনা করি।

আজকের সর্বশেষ সব খবর