শনিবার | ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

স্বামীর জননাঙ্গ কাটার অভিযোগে বেঁধে রাখা হয়েছে গৃহবধূকে

প্রকাশিত : মে ৬, ২০২১




জার্নাল সারাদেশ বার্তা : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে এক গৃহবধূর বিরুদ্ধে ঘুমন্ত স্বামীর জননাঙ্গ কাটার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূকে বেঁধে রেখেছে স্বামীর পরিবারের লোকজন। বৃহস্পতিবার (৬ মে) সকালে গোয়ালন্দ পৌরসভার জুড়ান মোল্লার পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে।

আহত স্বামীর নাম মাসুদ সরদার (৩২)। তিনি ওই এলাকার মোসলেম সরদারের ছেলে। তাকে গুরুতর অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মাসুদের পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, মাসুদের স্ত্রী মানসিকভাবে অসুস্থ। প্রায় এক বছর ধরে বিভিন্নভাবে তাকে চিকিৎসা দিয়েও পুরোপুরি সুস্থ করা যায়নি।

দুপুরের দিকে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ওই গৃহবধূকে ঘরের বারান্দায় একটা খুঁটির সঙ্গে দুই হাত রশি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। ওই অবস্থায় তিনি জানান, তাকে তালাক দিয়ে আরেকটি বিয়ে করবেন বলে তার স্বামী ও শ্বশুর অনেকবার শাসিয়েছেন। তাই রেগে গিয়ে তিনি এ কাজ করেছেন। এছাড়াও তার স্বামীর ক্রিকেট নিয়ে জুয়া খেলার নেশা ছিল, তবে এখন নেই। এ নিয়ে ঝগড়া লাগতো। স্বামী ঠিকঠাক মতো আয়-রোজগারও করেন না।

এদিকে ওই গৃহবধূকে বেঁধে রাখার বিষয়ে পরিবারের লোকজন বলেন, সে (ওই গৃহবধূ) কখন কাকে আক্রমণ করেন তার ঠিক নেই। কিছুদিন আগে তার নিজের এক বছর বয়সী বাচ্চা ছেলেকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করেছে। তার বাবার বাড়ির লোকজনকে খবর দেয়া হয়েছে। তারা এলে ওখানে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ কোন অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেবেন।