মঙ্গলবার | ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

হাসেম ফুডসের মালিকের বিরুদ্ধে আরেক মামলা, তদন্তে সিআইডি

প্রকাশিত : জুলাই ১৫, ২০২১




জার্নাল ডেস্ক ॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাসেম ফুডস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এর মালিকের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা হয়েছে। আগুনে ৫২ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত করবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। বৃ

প্রতিষ্ঠানের মালিক আবুল হাসেম ও উপমহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশীদের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার শ্রম আদালতে মামলা করেছে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর। তাদের বিরুদ্ধে শ্রম আইন ২০০৬-এর ৮০ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগে দণ্ডবিধির ৩০৭ ধারায় অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই)  বিকেলে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জের উপমহাপরিদর্শক সৌমেন বড়ূয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালত মামলাটি গ্রহণ করেন। মামলাটি করেছেন সংস্থার পরিদর্শক নেছার আহমেদ।

সৌমেন বড়ূয়া জানান, আগুনে নিহত ব্যক্তিদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ও আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার ব্যয় কারাখানার মালিক না দিলে তার বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা করা হবে। তিনি জানান, অগ্নিকাণ্ডের আগে ওই কারখানা পরির্দশন করা হয়। তাদের কারখানায় নানা সমস্যা খুঁজে পাওয়া যায়। পরে গত ৩০ জুন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী শ্রম পরিদর্শক সৈকত মাহমুদ বাদী হয়ে শ্রম আইনে হাসেম ফুডসের বিরুদ্ধে মামলা করেন। কারখানা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনাজনিত প্রাণহানি হলে দুই কার্যদিবসের মধ্যে ওই ঘটনা কলকারখানা পরিদর্শককে নোটিশ করে জানানোর বিধান থাকলেও হাসেম ফুডস তা করেনি। গত ৮ জুলাই হাসেম ফুডস কারখানায় আগুন লাগে। এ ঘটনায় ৫২ জন নিহত হন। জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে কারখানার মালিক আবুল হাসেম, তার চার ছেলেসহ আটজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করে।

গত বুধবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে কারখানার মালিক আবুল হাসেমসহ ছয়জনকে কারাগারে পাঠানো হয়। হাসেমের দুই ছেলের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

এদিকে আগুনে ৫২ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত করবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পুলিশ সদর দপ্তর থেকে এ আদেশ দেওয়া হয়। জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, মামলার নথি, আলামতসহ সবকিছু তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির তদন্ত কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করবেন।

সিআইডি নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের বিশেষ পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন বলেন, সিআইডি থেকে আগামী শনিবার তদন্তভার গ্রহণ করা হবে। যথাযথ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

৮ জুলাই বিকেলে রূপগঞ্জে হাসেম ফুড কারখানায় আগুনে পুড়ে ৫২ জনের মৃত্যু হয়। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ১৮টি ইউনিট একটানা ৪৮ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই ঘটনায় জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করে।

আগুনে পুড়ে মৃত্যুর ঘটনায় রূপগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হহুমায়ূন কবীর বাদী হয়ে কারখানামালিক আবুল হাসেম ও তাঁর চার ছেলে, প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাসহ আটজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

আজকের সর্বশেষ সব খবর