বৃহস্পতিবার | ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

সরকারি চাকরি করার স্বপ্ন ছিল: ট্রাকের চাপায় সব স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল তানিয়ার

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩




মোঃ আলাল মিয়া, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় তানিয়া বেগম (২০) নামের এক কলেজ ছাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুই শিক্ষার্থী। জানাযায়, সোমবার (৬ফ্রেব্রুয়ারি) সকালে কলেজের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় তানিয়া। বাড়ি থেকে বের হয়ে উপজেলার কাজিরবাজার এলাকায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত তানিয়া হলেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের কামড়াখাই গ্রামের চান্দু মিয়ার মেয়ে। তিনি জগন্নাথপুর উপজেলার পার্শ্ববর্তী উপজেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নবীগঞ্জ সরকারি কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তানিয়ার সাথে আহত হলেন তার সহপাঠী সেফু মিয়া এবং একই কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী জাকিয়া বেগম।আহতদের সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক ফয়জুল হক বলেন, ঘটনার পর চালক পালিয়ে গেছেন। ট্রাকটি উদ্ধার করে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে। তানিয়ার লাশ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ফয়জুল হক জানান, আজ সকালে তানিয়া, সেফু ও জাকিয়া মোটরসাইকেলে করে কলেজের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। পথিমধ্যে তারা পার্শ্ববর্তী উপজেলা নবীগঞ্জের কাজিরবাজার এলাকায় পৌঁছালে ধানবোঝাই একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এ সময় তাদের উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসকেরা তানিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর দুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

তানিয়ার মা রোকসানা বেগম বলেন, পড়ালেখার প্রতি মেয়েটির খুব আগ্রহ ছিল। স্বপ্ন দেখত পড়ালেখা শেষ করে সরকারি চাকরি করে পরিবারে মুখে হাসি ফুটাবে। কিন্তু ট্রাকের চাপায় আমাদের সব স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল!

আজকের সর্বশেষ সব খবর